মোবাইল দিয়ে ব্লগিং কিভাবে করবেন ?

মোবাইল দিয়ে ব্লগিং কিভাবে করবেন ?


আমরা সবাই চাই ব্লগিং করে টাকা ইনকাম করতে কিন্তু  বেশিরভাগ বড় বড় ব্লগার সব সময় বলে ব্লগিং এর জন্য ল্যাপটপ ব্যবহার করতে তার মানে কি মোবাইল দিয়ে ব্লগিং হয় না?

এটি একদমই ভুল ধারণা, mobile এর মাধ্যমে blogging অবশ্যই করা যায় কিন্তু তার জন্য দরকার সঠিক জিনিস যেমন html editor বা আপনার ওয়েবসাইট থেকে সাজানোর জন্য কিছু ব্যবস্থা।
আজকে আমরা জানবো আপনি কিভাবে মোবাইল দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরি করে ব্লগিং করবেন

mobile-diye-blogging-bengali-how to do mobile blogging

এটি mobile blogging কিভাবে করবেন ,তার প্রথম পার্ট যেখানে আপনি জানতে পারবেন মোবাইলে blogging করতে গেলে কি কি দরকার হয়। বা কিছু পরবর্তী সমস্যা সমাধান আগে থেকে করে নেওয়া যেগুলো ব্লগিং করতে গেলে হয়ে থাকে।
পরবর্তী আর্টিকেল জানাবো কিভাবে ব্লগ তৈরী থেকে ইনকাম করা অবধি কোন কোন কাজ আপনাকে পরপর করতে হবে ।

১. মোবাইল দিয়ে ব্লগিং করার জন্য কি কি দরকার (Mobile blogging tools)

মাউস ও একটি জ্যাক

 

how-to-do-mobile-blogging-bengali
মোবাইল দিয়ে ব্লগিং করার জন্য প্রথমে আপনার যেটি দরকার সেটি হল মাউস ও একটি জ্যাক।
মাউস ও জ্যাক কেন দরকার? একটি mouse ও মাউসটিকে আপনার মোবাইলের সঙ্গে কানেক্ট করার জন্য একটি কানেক্টর jack দরকার তার কারণ হলো  যখন আপনি আপনার ওয়েবসাইটে কোন কিছু এডিট করবেন বা কোন টাইপ বা copy-paste  করবেন তখন আপনার ফোনে মাউস ব্যবহার করলে খুব সহজে তা হবে।
mobile-diye-blogging-bengali-how to do mobile blogging-mouse-connector

২. মোবাইল ব্লগিং করার সঠিক ব্রাউজার (Browser For Blogging )

পুফিন ব্রাউজার(Puffin Browser)

এই Puffin ব্রাউজারটির ব্যবহার অনেক আগে থেকেই হয়ে আসছে অনেক blogger যারা প্রথম প্রথম শুরু করেছিল তারা এই Puffin Browser কেই ব্যবহার করত এই ব্রাউজারে কিছু features  রয়েছে যেগুলি আপনি অন্য ব্রাউজারের মধ্যে পাবেন না। যেমন –
  • HTML Code Edit-এই ব্রাউজারটিকে ব্যবহার করে আপনি সহজেই যেকোনো html code কে সহজেই এডিট করতে পারবেন ও কোনটিকে সহজে কপি-পেস্ট করে নিতে পারবেন। এক্ষেত্রে অন্য ব্রাউজার ব্যবহার করলে অনেক সমস্যা দেখা যায় যেমন ব্রাউজারটি স্লো হয়ে পড়ে ।
  • Mouse Support -এই ব্রাউজারে খুব সহজে মাউস সাপোর্ট করে যায় যার জন্য আপনি মাউসের মাধ্যমে আপনার ফোনটিকে চালাতে পারবেন

গুগল ক্রোম(Google Chrome)

গুগল ক্রোমের একটি অনবদ্য ফিচার রয়েছে যার নাম desktop mode আপনি যে কোন ওয়েবসাইট খুলে ক্রোমের desktop mode অন করে দিলে ওয়েবসাইটটি সেই এরকম দেখাবে যা একটা মানুষ computer বা ল্যাপটপে দেখতে পাবে সুতরাং মোবাইল এর মাধ্যমে আপনি desktop এর কাজ গুলি করতে পারবেন।

৩. ব্লগিং করার অ্যাপ (Apps for blogging)

 

ব্লগার অ্যাপ(Blogger Apps)

আপনি যদি ব্লগিং করতে চান এর থেকে গুরুত্বপূর্ণ এপ্স কি হতে পারে? গুগলের ব্লগার অবশ্যই চাই এই অ্যাপস এর মাধ্যমে আপনি ব্লগিংয়ের a to z কাজ করতে পারবেন. যা অন্যভাবে করতে গেলে আপনাকে গুগল ক্রোমে ব্লগার ওয়েবসাইট খুলে তারপর আপনাকে কাজ করতে হবে.

ওয়ার্ডপ্রেস (WordPress Apps)

আপনি যদি ওয়ার্ডপ্রেস এর মাধ্যমে ব্লগিং করতে চাই তো wordpress app গুরুত্বপূর্ণ কিছু নয় , মোবাইল এর মাধ্যমে নিয়ন্ত্রণের জন্য ওয়ার্ডপ্রেস সমান জরুরী যদি আপনি ওয়ার্ডপ্রেসে আপনার ওয়েবসাইট খোলেন।

৪. ব্লগ লেখার অ্যাপস

আপনি যদি ভাবেন ব্লগারে article লেখার জন্য ব্লগার অ্যাপসটি যখন রয়েছে তখন অন্য কোন apps এর কি দরকার লেখার জন্য ?
এক্ষেত্রে আমি বলব , অনেক ক্ষেত্রে নেট অন থাকা অবস্থায় আপনি ব্লগারে যখন লিখবেন তখন আপনি লেখার সময় network speed এর জন্য ব্লগারে বারবার বন্ধ হয়ে যাওয়ার মতো অনেক সমস্যায় পড়তে পারেন।
তার জন্য সবচেয়ে ভালো উপায় offline কোথাও লিখে রাখুন এবং তা পরে নেট অন করে ব্লগারে paste করে দিন। এবং বাকি কাজটি সুন্দরভাবে সাজিয়ে পোস্ট করুন।

Microsoft One Note

এই অ্যাপসটিতে আপনি আপনার আর্টিকেলটি লিখতে পারবেন এখানে আপনি heading, sub-heading, bold, italics, font change, লেখার color change সবই খুব সহজে করতে পারবেন। এখানে সেই প্রত্যেকটি ফিচারস রয়েছে যা ব্লগারে আছে।

Google Doc 

লেখার জন্য সবচেয়ে ভালো প্ল্যাটফর্ম বোধহয় Google Doc। গুগল ডক ব্যবহার করে আপনি সেই প্রত্যেকটা কাজ করতে পারবেন যা ব্লগিংয়ের ক্ষেত্রে আর্টিকেল লেখার জন্য জরুরী।
আপনি গুগল ডকে আর্টিকেল লিখতে পারবেন bold, italics,underline  সবই করতে পারবেন এছাড়া যেকোনো font edit বা লেখা optimize করতে পারবেন

আপনি লেখাটি Googe Doc এ লিখে তারপর সেটি ব্লগারে কপি পেস্ট করে দিয়ে পোস্ট করতে পারেন।

৫. ছবি(Copyright Free Image for Blog) ছবি ডাউনলোড(Image Download For Mobile Blogging)

ব্লগিং এর জন্য ছবির অবশ্যই দরকার আছে। pixel  বা pixabay র মত ওয়েবসাইট থেকে আপনি ব্লগারের জন্য copyright free image বা videoপেয়ে যাবেন।
কপিরাইটযুক্ত ছবি ব্যবহার করলে পরবর্তী ক্ষেত্রে আপনার ওয়েবসাইটে কপিরাইটের সমস্যা থেকে যায় তার জন্য সবচেয়ে ভালো কপিরাইট ফ্রি ছবি ডাউনলোড করে ব্যবহার করা

Canva

ছবি ডাউনলোড করার পর ছবি edit করার জন্য ক্যানভার থেকে professional ও ভালো অ্যাপস খুব কমই আছে। আপনি গুগল play store থেকে Canva অ্যাপটি ডাউনলোড করে নিন ছবি এডিট করার জন্য।

Image Compresser 

ব্লগারে যত বড় ফাইল এর ছবি আপলোড করবেন আপনার ওয়েবসাইটের page loading speed তত কমে যাবে। মানে পেজটি লোড হতে বেশি টাইম লাগবে এজন্য যে ছবিটি ব্যবহার করছেন সেটিকে একটু compress  বা সাইজ কমিয়ে নিতে হয়।
যেমন ছবির সাইজ 3mb হলে আপনি কম্প্রেসার ব্যবহার করে সেই ছবিটি কে 1mb বা তারও কম কমিয়ে নিতে পারেন এর জন্য আপনার ছবির দৈর্ঘ্য প্রস্থের কোনো পরিবর্তন হবে না। বলা যায় ছবিটি একই থাকবে।
আপনি প্লে স্টোর থেকে যেকোনো ধরনের image compresser apps ডাউনলোড করে নিতে পারেন এবং আপনার ছবিটি যে ফরমেটে আছে অর্থাৎ যদি jpeg ফরমেটে থাকে তো সেই অনুযায়ী jpeg compress অপশনের মাধ্যমে ছবিটি কম্পোজ করে নিন।

 

৬. ইএস ফাইল ম্যানেজার (ES File Manager)

এই ES File Manager অ্যাপসটি অনেক কার্যকরী একটি অ্যাপস। আপনার ওয়েবসাইটটি কেমন দেখতে হবে তার জন্য আপনার থিমের দরকার হয়।
ব্লগারের নিজস্ব কিছু theme রয়েছে কিন্তু সেগুলি একদমই professional নয়। আপনার ওয়েবসাইটটিকে প্রফেশনাল করার জন্য আপনার একটি professional themeর দরকার পড়ে।
এই প্রফেশনাল থিম আপনি গুগল এ free download করে নিতে পারবেন ব্লগার ফ্রি প্রফেশনাল থিম লিখে কিন্তু সবচেয়ে বড় সমস্যা যেটা হয় যে এই থিমগুলো প্রত্যেকটাই থাকে xml এই format।
তার জন্য অনেক সমস্যা তৈরি হয় কিন্তু এর জন্য সবচেয়ে বড় সমাধান হচ্ছে ইএস ফাইল ম্যানেজার।
এটিকে ব্যবহার করে আপনি যেকোনো প্রফেশনাল থিমের html code  পেয়ে যাবেন এবং সেটিকে ফুল কপি করে আপনার ওয়েবসাইটের theme editor অপশনে গিয়ে আগের কোড ডিলিট করে দিয়ে নতুন কপি করা কোডটি পেস্ট করে দিতে পারেন এবং সেভ করলে আপনার ওয়েবসাইটটি পুরো প্রফেশনাল হয়ে যাবে ।
অর্থাৎ আপনার ওয়েবসাইটের যে কোনো থিমকে সঠিকভাবে install করার জন্য ইএফ ফাইল ম্যানেজারটি খুবই কার্যকরী একটি অ্যাপস ।

৭. ফাইল সেভ (File Save)

গুগল ড্রাইভ(Google Drive) 

ধরুন আপনি আপনার ওয়েবসাইটের মাধ্যমে আপনার visitor কে কোন কিছু ডাউনলোড করার সুযোগ দিতে চাইছেন যেমন কোন ভিডিও ডাউনলোড বা গান ডাউনলোড বা যে কোন file download।
কিন্তু ব্লগারের সবচেয়ে বড় সমস্যা এখানে আপনি ফাইল রাখতে পারবেন না । এর জন্য কাজে আসবে Google Drive।
আপনি আপনার ফাইলটি গুগল ড্রাইভে upload করে দিতে পারেন এবং linkটি আপনার ওয়েবসাইটে দিয়ে দিলে আপনার নিজেরটা খুব সহজেই ওই নির্দিষ্ট ফাইলটি ডাউনলোড করে নিতে পারবে খুব সহজে।

৮. এইচটিএমএল এডিটর(Html Editor)

এছাড়া আপনি আপনার কাজের সাহায্যের জন্য গুগল প্লে স্টোর থেকে ভালো একটি এইচটিএমএল এডিটর ডাউনলোড করে নিতে পারেন যেটি পরবর্তী ক্ষেত্রে আপনাকে অনেক বেশি সাহায্য করবে

৯. গুগল ট্রান্সলেটর (Google Translater)

এক ভাষা থেকে অন্য ভাষায় ট্রান্সফারের জন্য এর থেকে ভালো কিছু নেই । সুতরাং আপনার ব্লগ টি যদি ইংরেজিতে হয় এবং আপনি বাংলায় লিখে খুব সহজে সেটিকে ইংরেজিতে পরিবর্তন করে নিতে পারবেন। বা আপনি কোন ইংরেজি আর্টিকেল যদি বাংলায় পড়তে চান তখন এই অ্যাপসটি খুবই সাহায্য করবে।

১০. গ্রামারলি(Grammerly)

এর নাম আপনারা প্রত্যেকেই শুনেছেন হয়তো । আপনার ব্লগ বা ওয়েবসাইট যদি ইংরেজিতে হয় সেক্ষেত্রে আপনার গ্রামারের ভুল কি করতে অ্যাপসটি খুবই কার্যকরী। অ্যাপসটির মাধ্যমে খুব সহজে আপনি আপনার ইংলিশ গ্রামার ঠিক করে নিতে পারবেন।

১১. গুগল এনালিটিক্স (Google Analytics)

এটার মাধ্যমে আপনি আপনার ওয়েবসাইটে কে কে ভিজিট করছে বা কোথা থেকে ভিজিট করছে কতক্ষণ থাকছে এসব কিছুই দেখতে পারবেন ও analyisis  করতে পারবেন

১২. গুগল এডসেন্স(Google Adsence)

বর্তমানে গুগল তার এডসেন্সের অ্যাপসটি কে বন্ধ করে দিলেও আপনি গুগল এডসেন্স এর ওয়েবসাইটে গিয়ে আপনার সাইটটিকে ম্যানেজ করতে পারবেন।
গুগল এডসেন্সের মাধ্যমে আপনি আপনার সাইটে কত কি ইনকাম হচ্ছে বা সেখান থেকে অ্যাড আপনার ওয়েবসাইটে লাগাতে পারবেন।
সবশেষে,
ব্লগিং করে অনলাইন ইনকাম করার ক্ষেত্রে প্রত্যেককেই অনেকটাই বেশি ধৈর্য রাখতে হয়। আপনি যদি ভাবেন মোবাইলের মাধ্যমে ব্লগিং হয় না তো একটা ভালো উদাহরণ এখানে দেওয়া যেতে পারে।
Sahu4You এটি একটি জনপ্রিয় ওয়েবসাইট যার মালিক Vikas Sahu এই ওয়েবসাইটটি প্রথম শুরু করেন মোবাইলের মাধ্যমে ব্লগিং করে এবং আজ সে অনেক ভালো পর্যায়ে আছে।
সুতরাং আপনিও যদি একটু ভালোভাবে কাজ করতে পারেন আপনি আপনার সাইটটিকে ভালো জায়গায় নিয়ে যেতে পারবেন।

5 thoughts on “মোবাইল দিয়ে ব্লগিং কিভাবে করবেন ?”

  1. Md. Mujahidul islam

    ব্লগ লেখার পাশাপাশি ছবি সংযুক্ত করা যায় এমন একটি ভাল অ্যাপস এর লিংক দিন প্লিজ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *